Only Fools Do Suicide For This!

HSC/SSC পরীক্ষার রেজাল্ট খারাপ হওয়াতে
যারা হতাশ, হতাশায় "আত্বহত্যা" করারও চেষ্টা করেছ, বা কি করবা ভেবে পাচ্ছ না, তাদের জন্য আমার এই ছোট্ট উপদেশ। ^_^
-
-
জীবনটাই হচ্ছে একটা পরীক্ষা। আর সেটা "বেঁচে থাকা"-র পরীক্ষা। যা-ই করছি বেঁচে থাকার জন্য। এখন -- সামান্য এই SSC/HSC পরীক্ষার জন্যে যদি-- বেঁচে থাকার পরীক্ষায় ফেইল কর -- তাহলে এর চেয়ে বোকামি আর কিছুই হবে না। ^_^
-
-
নিজেকে "1st Person" --
পরিবারকে "2nd Person" --
আর
বাকিদের "3rd" --
নিজের কথা চিন্তা না করলেও, পরিবারের কথা চিন্তা করে হলেও বাঁচতে হবে। আর, ৩য় টাকে -- বুড়া আঙ্গুল দেখানোর জন্যে হলেও বাঁচতে হবে। ^_^
-- এইতো বললাম -- কেন বাঁচতে হবে।
-
-
এখন বলি - কিভাবে বাঁচতে হবে?
-- আমরা সবসময় "সময়" এর দিকে খেয়াল করি।
"ইস! এই কাজটা কেন করলাম না!"
"হায়রে! আমি অনেক সময় অপচয় করে ফেলেছি"
"আমাকে দিয়ে আর হয়ত হবে না"
"আমি শেষ, এই জীবন রেখে কি লাভ!"
এইভাবে হা হুতাশ করি।
কিন্তু একটুও ভেবে দেখি না, যা অর্জন করেছি তা কিন্তু কম না। আমাদের এইটায় একটা বদ-অভ্যাস। কি অর্জন করেছি সেটা একদমই দেখি না আমরা। দেখলে একটা আত্বতৃপ্তি পাওয়া যায় যা আরো অর্জনের হাতিয়ার হয়ে উঠে। আরো বেঁচে থাকার ইচ্ছে জাগে, আত্বহত্যার তো প্রশ্নই উঠে না। "কি কি অর্জন করতে হবে?" এই প্রশ্নটার উত্তর খোঁজার আগে "কি কি অর্জন করেছি?" সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে হবে।
-
-
এখন আমাকে অনেকেই বলবেন, "ভাই, জীবনে কিছুই অর্জন করতে পারলাম না :/ "। আমি বলি, ভাই--- রিয়েলি? -_- আমার পোস্ট যে পড়তাছেন এইটার জন্য যে অক্ষরজ্ঞান দরকার সেটা কি আপনি অর্জন করেন নি? আমার লিখা যে ধৈর্য্য সহকারে পড়তাছেন সেই ধৈর্য্যও কিন্তু আপনার একটা অর্জন। সবার সেটা থাকে না। আর কি কি অর্জন করেছেন সেটা তালিকা করা - আপনার আজকের বাড়ির কাজ। ;) যখনই হতাশ হয়ে যাবেন তখনই তালিকাটাতে একবার চোখ বুলিয়ে নিবেন। ঠিকাচ্ছে?
-
-
সময়ের দিকে খেয়াল করার আগে "কি শিখলাম? কতটুকু শিখলাম" তার দিকে খেয়াল করতে হবে। এরপর -- সময়ের সাথে মিলিয়ে বাকিটুকু আয়ত্ত্ব করা। --- আমি নিজেই ২ বার "ক্লাস-৯" পড়ি। যেখানে -- প্রথম বার, একটা নামীদামী হাই-স্কুলে (ক্লাস ৬ থেকে ৯ পর্যন্ত পড়ি) ক্লাস-৯ এ সায়েন্স নিয়ে "৪-৫" টি সাবজেক্টে ফেইল করি। তার জন্য আমাকে ঐ স্কুলে ১০-এ উঠতে দেয় নি বিধায় আমি অন্য আরেকটা সাধারণ পাবলিক স্কুলে ক্লাস-৯ এ পুনরায় ভর্তি হয়। পরবর্তীতে -- আমি ঐ নতুন স্কুল থেকে ৪.৫৬ পেয়ে এস এস সি পাশ করি। ^_^ আলহামদুলিল্লাহ!! আমি বিন্দুমাত্র হতাশ হয় নি। কেন? কারণ-- যেখানে আমি পুরো স্বণামধন্য পুরাতন স্কুলটিতে ক্লাস ৯ এ একটা বছর পড়ে ৪-৫ টা সাবজেক্টে আমি ফেইল করে ছিলাম, সেখানে সাধারণ একটা স্কুলে এসে আমি ২ টা বছর নতুন স্কুলে পড়ে -- অনিয়মিত ক্লাস করেও -- ৪.৫৬ পেয়েছি। আমার পিতা-মাতা, পরিবার, আত্বীয়-স্বজন খুশি না হলেও -- আমি নিজে অবাক হয়েছিলাম আমার অর্জন দেখে। ^_^ --- এই জন্যই অবাক হয়েছিলাম যে, অনিয়মিত পড় এমন রেজাল্ট করেছি। আরেকটু ভাল করে পড়লে হয়তো এ+ আসত। একটু হতাশ হয়েছিলাম যখন আমার সহপাঠীদের সাথে আমি আমার রেজাল্ট তুলনা করেছিলাম। কিন্তু যখন আমার নিজের পূর্বের অর্জনের সাথে তুলনা করলাম এক নিমিষেই সেই হতাশা আমাকে "টা টা" দিয়ে দিল। :D
-
-
যাই হোক,
আত্বহত্যা করা কোন সমস্যার সমাধান না। :) সব সমস্যার সমাধান হচ্ছে -- সমস্যা নিয়ে বেঁচে থাকা। সব সমস্যার সমাধান হচ্ছে - আরো সমস্যার উদয়। সমস্যাকে উপভোগ করতে হবে যেভাবে আমরা সমাধানকে করি। ^_^
-
-
টানা তিন কি চার দিন কিংবা ১ সপ্তাহ বদ্ধ ঘরে থেকে এরপর একদিন সুন্দর কোন জায়গায় ঘুরতে যান। দেখবেন, পৃথিবীটা কত সুন্দর যেখানে ১ সপ্তাহ আপনি ঘরে আবদ্ধ হয়ে সেটা উপভোগ করতে পারেন নি। ১ সপ্তাহ টানা বেঁচে থাকায় হয়ত এখন পেরেছেন। কিন্তু আত্বহত্যা করলে সেই সুযোগ কি আর পেতেন? আত্বহত্যা হচ্ছে, ঐ বদ্ধ ঘরে নিজেকে নিজেই সারাজীবনের জন্য স্থায়ীভাবে বন্ধী করে রাখার মত যেখান থেকে আপনি চাইলেও আর বের হতে পারবেন না। ^_^
-
-
যে মনের শক্তিটা "আত্বহত্যা"-র জন্য এনেছ, সেটা তোমার ঐসব বিষয় চর্চায় ব্যয় কর যেগুলোতে তুমি দূর্বল অর্থাৎ, পরীক্ষায় যেসব বিষয়ে খারাপ করেছ। আশা করি, বিপদ কাটিয়ে উঠতে পারবে, ইনশা-আল্লাহ। শুভ কামনা রইল। ^_^
----------
পোস্টটি এস এস সি পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে ২২শে লিখেছিলাম। আজ ৩১ জুলাই, ২০১৭ এ -- এইটা পুনরায় সংযোজন ও পরিমার্জিত করে আবার লিখেছি। ভুলত্রুটি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। আপনাদের মন্তব্য অবশ্যই জানাবেন। ভবিষ্যতে আরো লিখার ইচ্ছা রয়েছে যদি আপনারা পাশে থাকেন। ধন্যবাদ :)
---------
লিখেছেনঃ Jamilur Rahman Masum